Buy this theme? Call now 01710441771
Welcome To Abc24.GA
.May 25, 2016

ভোর ৬টা ঘুমিয়ে আছি....


ভোর ৬টা
ঘুমিয়ে আছি.... হঠাৎ শিতল ঠোটের
স্পর্শে দেহের শিরা উপশিরা গুলো
কম্পিত হতে লাগল,চোখ খুললাম!
দেখি আমার পরিটা মুচকি মুচকি
হাসছে
(ভালবাসার মানুষগুলোর ছোয়ার
মাঝে
এক ধরনের অদ্ভত.... ভাললাগা
বিরাজমান!যা কারও কাছে
ইলেকট্রিক
সর্ট আবার কারও কাছে সাগরের
অতলের
মত )
.
-- এই ওঠো! অনেক সকাল হয়ছে!
-- হুম(ঘুমিয়েই)
--হুম না ওঠো!
--যাচ্ছ কোথায়? একটু বুকে আসোনা
গো!
-- আহা... কি করছো? সবসময় দুষ্টমি
করতে হয়! ?
আমার মাথার চুলগুলো এলোমেলো
করে
দিলো...
--হুম! আর সেটা তোমার সাথেই!
--এই এখন ছাড়ো... ফ্রেশ হয়ে এসো! যাও
-- যাচ্ছি তার আগে একটু আসো তো
এইবলেই আমার পরীটাকে বুকে জড়িয়ে
নিলাম, খুব শক্ত করে
ওর ভেজা চুল,চুলগুলো থেকে এক ধরনের
অদ্ভুত ঘ্রাণ বের হচ্ছে! যা ঘরটিকে
মাতিয়ে তুলছে!
.
--এই এখনতো ছাড়ো।
-- আরেকটু প্লীজ।!!!!!!
--নাহ ছাড়ো!
আমি এবার আরও শক্ত করে ওর দুহাত
চেপে ধরলাম!
তারপর নাকের ডগাটা ওর নাকের
সাথে
ঘসা দিলাম.....
ও আমার বুকের ওপর কয়েকটা কিল ঘুসি
মেরে পালালো!
আর যাবার সময় জিব্বাহ কেলিয়ে
গেল..... মনে হচ্ছে আমাকে পরে দেখে
নিবে!
.
ফ্রেশ হয়ে... দেখি বউ রান্না ঘরে...
মেয়েটি...ছাপা শাড়ি পরে আছে,
আচলটা কোমরে গোজা! চুল গুলো
খোলা
অবস্থায় মাথার সাথে ছোট করে
আটকে
রাখা! দেখতে তো সেই লাগছে! নাহ
আর
থাকা যায়না!
.
আস্তে আস্তে গিয়ে পেছন থেকে
ওরে
যাপটে ধরলাম...
--হুহুহুহু! আবার শুরু করলে?
-- হুম আসলে তোমাকে খুব সুন্দর
লাগছেতো তাই আর লোভ সামলাতে
পারলাম নাহ! হিহিহি
--ও তাই?
--হুম ঠিক তাই!
--ওওও তাহলে এখন ছাড়ো! রুটি পুরে
যাবেতো
এই বলেই আমাকে চিমটি কাটলো!
.
আমি হাল ছেড়ে দিয়ে... রুমে চলে
আসলাম!
.
কিছুক্ষণপর
-- এই খেয়ে নাও খাবার রেডি!
(চিল্লানি দিয়ে )
--আসতেছি
তারাতাড়ি আসো?
.
এসে দেখি পরিটা খাবার নিয়ে বসে
আছে!
--তুমি বস! আমি আসছি!
--কোথায় যাচ্ছ আবার?
ওর হাতটা ধরলাম
-- তুমি শুরু করো! আমি এই যাবো আর
আসবো!
--নাহ! একসাথে খাবো!
-- ওকে বাবা আসতেছি...পাগল একটা
এবলেই আমার খাড়া নাকটা বোচা
করে
দিল!
.
.
চোখাচোখি বসে আছি..দুজনে
-- এই পরি খাইয়ে দাওনা?
-- নিজে খেতে পারোনা? দিন দিন
কি
আরও ছোট হয়ে যাচ্ছ যে খাইয়ে দিতে
হবে?
--নাহ পারছিনা! তুমি খাইয়ে দাও!
--পারবনা!
--ওকে! তুমি না খাইয়ে দিলে আজ
খাবোইনা!(অভিমানী সুরে)
--অমনি হয়ে গেল তাইনা
---...............
...
এখন ও আমাকে খাইয়ে দিচ্ছে!আহ
হাহা
বউয়ের হাতে খাওয়ার মজাই আলাদা!
(
মাঝে মাঝে রাগ থেকে যদি হয় দারুন
কিছু তো রাগই ভাল!)
.
--বাহ দারুন হয়ছে
--সত্যি(মন ভুলানো হাসি দিয়ে)
--হুম
প্রত্যেকটি মেয়েই চায় কিনা
জানিনা... হয়তো চায়, যে তার সকল
কিছুর প্রশংসা করুক, তাও আবার তার
ভালবাসার মানুষটি!
.
এক টুকরো রুটি ছিড়ে....
--এই পরি হা করো
-- আগে তুমি খাওতো তারপর আমি
খাচ্ছি!
--নাহ..! হা কর প্লিজ!
--ওকে...
ও আমার হাতটি ধরে... গলগদ্ধকরন করল!
--এই পাগলি কাদছো কেন হুম!?
--ও কিছুনা! এমনিতেই চোখে পানি
এসে
গেল!
-- দেখি...
ওর চোখের জল গুলো মুছে দিলাম...
জানি
এই জলটার মূল্য কতখানি! মাঝে মাঝে
এই জলই তো বলে নিরবে প্রকাশ করে...
ভালবাসি কতটুকু, ভালাবাসা যায়!
.
এরপর ওকেবুকে টেনে নিলাম........
.
এসময় একটা কথায় মনে পরছে....
ভালবাসা ভালবাসে শুধুই তাকে
ভালবেসে ভালবাসায় বেঁধে যে
রাখে!!
.