Buy this theme? Call now 01710441771
Welcome To Abc24.GA
.Nov 30, 2016

সত্যিকারের ভদ্র মেয়ের কিছু বৈশিষ্ট্য


ভদ্র মেয়েরা হচ্ছে সমাজের সৌন্দর্য। এমন
অনেক পুরুষ আছেন যারা ভদ্র মেয়ে বিয়ে
করবেন এই ভেবে বিয়েই করছেন না, অথচ
বিয়ের বয়স যাচ্ছে পেরিয়ে। আসুন কিছু
কমন বৈশিষ্ট্য দেখে চিনে নেই সত্যিকারের
ভদ্র মেয়ে:

১) ভদ্র মেয়েরা সর্বপ্রথম তাদের পোশাক
নিয়ে খুব সচেতন থাকে। এমন কিছু পরে না
যাতে করে বাহিরের কেউ চোখ তুলে
তাকাতে সাহস করে। অনেকে বোরখা
পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে।

২) ভদ্র মেয়েরা প্রেমের ব্যাপার নিয়ে খুব
সিরিয়াস থাকে। তারা সচারচর প্রেমে জড়াতে
চায় না, কিন্তু যদি কারো সাথে প্রেমে
জড়িয়ে যায়, তাহলে মন প্রাণ দিয়ে চেষ্টা
করে তা টিকিয়ে রাখতে।

৩) ভদ্র মেয়েরা সবসময় বন্ধু, পরিবার এবং
বয়ফ্রেন্ডকে আলাদাভাবে গুরুত্ব দেয়।
একটির জন্য অপরটির উপর প্রভাব পড়ুক তা তারা
চায় না। যার জন্য তাদের ঝামেলা পোহাতে হয়
বেশি।

৪) ভদ্র মেয়েদের রাগ একটু বেশি। যার
উপর রেগে যায় তাকে মুখের উপর সব
বলে দেয়। মনে কোনও রকম রাগ, হিংসে
লুকিয়ে রাখে না। এতে অনেকের কাছে
ঝগড়াটে উপাধিও পেয়ে বসে।

৫) ভদ্র মেয়েদের রাগের ঝামেলা
পোহাতে হয় বিশেষ করে তাদের
বয়ফ্রেন্ডকে। এরা রেগে থাকলে অযথা
বয়ফ্রেন্ডকে ঝাড়ে। পরবর্তীতে
নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে সরি বলে।
যে মেয়ে তার বয়ফ্রেন্ডকে সরি বলে
তাহলে বুঝতে হবে সে তার
বয়ফ্রেন্ডকে খুব বেশি ভালোবাসে।

৬) ভদ্র মেয়েরা সাধারণত ফেসবুকে ছবি
আপলোড দেয় না। যদি দেয় তাহলে
প্রাইভেসি দিয়ে রাখে। ফেসবুকে কতিপয়
লুলু পুরুষ থেকে তারা ১০০ হাত দূরে থাকে।

৭) ভদ্র মেয়েদের বন্ধু/বান্ধবের সংখ্যা খুব
সীমিত থাকে।

৮) ভদ্র মেয়েরা আড্ডা বাজিতে খুব একটা
যেতে চায় না। যার জন্য তাদের বন্ধু/বান্ধব
থেকে ভাব্বায়ালি/আনকালচার খেতাব পেতে
হয়।

৯) ভদ্র মেয়েদের কবিতা লেখার প্রতি
আগ্রহ বেশি। তারা তাদের লেখা কবিতা সচরাচর
কাছের মানুষ ছাড়া কাউকে দেখাতে চায় না।

১০) ভদ্র মেয়েরা সাধারণ ঘরকুনো স্বভাবের
বেশি হয়।

১১) ভদ্র মেয়েদের কাছে পরিবারের
সম্মানটুকু সবার আগে। তারা পরিবারের সম্মানের
বিরুদ্ধে কোনও কাজ কখনও করে না।